জেনে নিন আপনি করোনাভাইরাস এ আক্রান্ত হয়েছেন কিনা?

করোনাভাইরাস (COVID-19) এটি মানুষের একটি সংক্রামক রোগ যা গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় সমস্যা সৃষ্টিকারী করোনাভাইরাস।এটি এক ধরনের ভাইরাসের আক্রমণে হয়ে থাকে । চীনের হুপেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম শনাক্ত করা হয় । পরে এটি সারা দুনিয়ায় ছড়িয়ে পরে যা পৃথিবী জুড়ে এক মহামারী সৃষ্টি করে কেউ কেউ এর নাম দিয়েছে তীব্র শ্বসনযন্ত্র ব্যাধি , নোভেল করোনাভাইরাস, উহান নিউমোনিয়্, Covid-19, অনানুষ্ঠানিকভাবে এক কথায় বলা যায় “করোনা ” ।

এটি  মানুষের মধ্যে করোনাভাইরাস শ্বাসনালীতে সংক্রমণ ঘটায়। । এটি ছোঁয়াচেয়ে রোগ তাই হাঁচি কাশি ও স্পর্শ সহ বিভিন্ন উপায়ে মুখ, নাক, কান ও চোখের মাধ্যমে মানুষের দেহে প্রবেশ করে।

এই সংক্রমণের লক্ষণ প্রথমে অল্প হতে পারে। উপসর্গ হিসেবে ধরা যায় জ্বর,ঠাণ্ডা, সর্দি,কাশি, গলা ব্যথা, শরীর ব্যথা, মাথা ব্যথা, বমি, ডায়রিয়া, পেট খারাপ হওয়া, শীতশীত ভাব, নাক বন্ধ হয়ে আসা, পেটে ব্যথা, কাশির সাথে রক্ত, অঙ্গের বিকলতা, ফুসফুস প্রদাহ , থুতু সৃষ্টি করা সহ শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় ।

অনেকসময় এটি সাধারণ মনে হয় কিন্তু পরবর্তীতে এটি ভয়াভহ রূপ নেয় । এই রোগের কোন মেডিসিন বের হয় নাই বলে নিশ্চিত মৃত্যু হতে পারে।

জেনে নিন আপনি করোনাভাইরাস এ আক্রান্ত হয়েছেন কিনা?

নিচের লক্ষন গুলো আপনার থাকলে আপনি করোনাভাইরাস এ আক্রান্ত হতে পারেন বলে সন্দেহ করা যেতে পারে।

প্রথম থেকে তৃতীয় দিন পর্যন্ত

হালকা জ্বর হবে ।

হালকা গলা ব্যথা দেখা দিবে ।

চতুর্থ দিন

গলা ব্যথা থাকবে ।

জ্বরের তাপমাত্রা বাড়তে থাকবে ।

কণ্ঠস্বর পরিবর্তন হবে ।

ক্ষুধামন্দা দেখা দিবে ।

মাথা ব্যথা করবে ।

এমনকি ডায়রিয়া ও হতে পারে ।

পঞ্চম দিন

ক্লান্তি অনুভভ করবে ।

শুকনো কাশি হবে ।

মাংসপেশিতে ব্যথা অনুভব হবে ।

ষষ্ঠ দিন

জ্বর এর তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রির মত হবে ।

কাশি অথবা শুকনো কাশি হবে ।

শ্বাসকষ্ট দেখা দিবে ।

ডায়রিয়া অথবা বমি হবে ।

সপ্তম দিন

জ্বরের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রির বেশি হবে ।

বেশি বেশি কাশি হবে ।

সমস্থ শরীরে ব্যথা হবে ।

শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাবে ।

ডায়রিয়া আর বমি তো থাকবেই ।

অষ্টম ও নবম দিন

জ্বর প্রচণ্ড বাড়বে এবং শ্বাসকষ্টও বেড়ে যাবে ।

উপরের বাকি উপসর্গ গুলো আরো বাড়বে ।

উপরের উপসর্গ সহ যদি সন্দেহজনক হয় তাহলে রক্ত পরীক্ষা করতে হবে । এক্সরে করতে হবে এবং ভাল ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে ।

ভয়াবহ করোনাভাইরাস এর ঝুকি কমাতে মোবাইল ফোন পরিষ্কার এবং জীবাণু মুক্ত রাখার উপায়।